কারণ ও প্রতিকার, শারীরিক সমস্যা

চোখ ওঠার কারণ, করনীয় ও চিকিৎসা

চোখ ওঠা সমস্যাটির সাথে আমরা সবাই কম বেশি পরিচিত। এই সমস্যাটি সম্পর্কে আমাদের অনেকের মাঝেই নানা ধরনের ভ্রান্ত ধারনা বিদ্যমান। তাই চোখ ওঠার কারণ, এই সমস্যায় আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসা পদ্ধতি ইত্যাদি বিষয়ে জ্ঞান থাকা একান্ত জরুরী।

চোখ ওঠা বলতে সাধারণভাবে চোখ লাল হওয়া, খচখচ করা, সামান্য ব্যথা করা। রোদে বা আলোতে তাকাতে কষ্ট হওয়া এবং পানি পড়াকে বোঝানো হয়। এই সমস্যার কারণে সকালে ঘুম থেকে উঠলে চোখের কোণে ময়লা জমতে পারে। সর্দি ও চোখে চুলকানিও হতে পারে।

চোখ ওঠার কারণ সমূহ জানেন কি?

আসুন আমরা এই সমস্যার সম্ভাব্য কিছু কারণ গুলো জেনে নেই।

  • অপরিষ্কার বা নোংরা জীবনযাপন চোখ ওঠার অন্যতম কারণ।
  • অধিকাংশ ক্ষেত্রে ভাইরাসের কারণে এই সমস্যা হয়ে থাকে।
  • বিভিন্ন ধরনের রাষায়নিক পদার্থ যেমনঃ শেম্পু, ধুলো, ধুয়া ইত্যাদি চোখে লাগলেই এই সমস্যাটি হতে পারে।

চোখ ওঠা সমস্যা প্রতিকারের জন্য কিছু বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে।

  • একটি পাতলা পরিষ্কার কাপড়ের টুকরা ঠান্ডা পানিতে ভিজিয়ে ভালো করে পানি চিপে ফেলে দিন। এরপর চোখ বন্ধ করে কাপড়টি চোখের উপর চেপে ধরুন। মাঝে মাঝে হালকা গরম পানি দিয়েও কাজটি করতে পারেন।
  • চোখের চারপাশের ময়লা পরিষ্কার করতে হবে।
  • এই সময় চোখে কনটাক্ট লেন্স এবং যেকোনো ধরনের কসমেটিক ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন।
  • বাইরে গেলে কালো সানগ্লাস ব্যবহার করুন।
  • আক্রান্ত ব্যক্তির ব্যবহৃত তোয়ালে, বালিশের কাভার ইত্যাদি আলাদা করুন।
  • দৃষ্টি ঝাপসা হলে, চোখ খুব বেশি বেশি লাল হলে, খুব বেশি চুলকানি বা অতিরিক্ত ফুলে গেলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

চোখ ওঠা ছোঁয়াচে রোগ। তাই আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শ এড়িয়ে চলতে হবে। এটি মারাত্মক কোনো সমস্যা নয়। সঠিক পরিচর্যা পেলে আক্রান্ত ব্যক্তি দ্রুত সুষ্ঠ হয়ে উঠতে পারেন।

Previous Post Next Post

You Might Also Like

Comments are closed.