টুথ অ্যাবসেস (Tooth abscess)

শেয়ার করুন

বর্ণনা

রোগটি ডেন্টাল অ্যাবসেস নামেও পরিচিত।

ব্যাকটেরিয়াজনিত ইনফেকশনের কারণে দাঁতে সৃষ্ট পুঁজপূর্ণ গহ্বরকে টুথ অ্যাবসেস বলে। দাঁতের বিভিন্ন অংশে বিভিন্ন কারণে এই রোগ হতে পারে। দন্তমূলের মাথায় পেরিঅ্যাপিকাল অ্যাবসেস (periapical abscess) ও দন্তমূলের পাশে মাড়িতে পেরিওডন্টাল অ্যাবসেস (periodontal abscess) হয়ে থাকে।

সাধারণত ডেন্টাল ক্যাভিটির চিকিৎসা না করা, আঘাত লাগা এবং পূর্বে দাঁতে কোনো চিকিৎসা করার কারণে পেরিঅ্যাপিকাল অ্যাবসেস হয়ে থাকে।

ডেন্টিস্টরা টুথ অ্যাবসেস ছিদ্র করার মাধ্যমে ইনফেকশন দূর করে এই রোগের চিকিৎসা করে থাকেন। এক্ষেত্রে দাঁতের সুরক্ষার জন্য রুট ক্যানাল করার প্রয়োজন হতে পারে। তবে কিছু ক্ষেত্রে দাঁত ওঠানোও প্রয়োজন হতে পারে। টুথ অ্যাবসেসের চিকিৎসা না করা হলে এর কারণে মারাত্মক সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে। ক্ষেত্রবিশেষে এটি জীবননাশীও হয়ে উঠতে পারে। 

কারণ

সাধারণত দাঁত ক্ষয়ের কারণে টুথ অ্যাবসেস হয়ে থাকে। এছাড়া দাঁত ভেঙে গেলে বা ক্ষুদ্র ভাঙা অংশ উঠে গেলে এই রোগ হয়। দাঁতের এনামেলে ছিদ্র থাকলে দাঁতের মূলে (পাল্প, pulp ) ব্যাকটেরিয়া প্রবেশ করে ইনফেকশন সৃষ্টি করে। এই এইফেকশন দাঁতের মূল থেকে দাঁতে সহায়তা প্রদানকারী হাড়েও ছড়িয়ে পড়তে পারে।

ইনফেকশনের জন্য দাঁতে পুঁজ জমা হয় এবং ফোলাভাব সৃষ্টি হয়। এ জন্য দাঁতে ব্যথা হয়ে থাকে। দাতেঁর পাল্প নষ্ট হলে ব্যথা কমে যায়। তবে অ্যাবসেস সৃষ্টি হলে ব্যথা থেকে যায়। এ ধরনের ইনফেকশন সক্রিয় থেকে বিস্তার লাভ করলে ব্যথা থেকে যায় এবং টিস্যু ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

লক্ষণ

এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে চিকিৎসকেরা নিম্নলিখিত লক্ষণগুলি চিহ্নিত করে থাকেন:

ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়

নিম্নলিখিত বিষয়গুলি টুথ অ্যাবসেস হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি করে-

  • দাঁতের যত্ন না নেওয়া: সঠিকভাবে দাঁত ও মাড়ির যত্ন না নেওয়া হলে দাঁতের ক্ষয়, টুথ অ্যাবসেস এবং দাঁতের অন্যান্য রোগ হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি যায়। যেমন- দিনে দুই বার দাঁত না মাজলে এবং ফ্লসিং না করা হলে এ ধরনের সমস্যা হতে পারে।
  • বেশি চিনিযুক্ত খাবার গ্রহণ: মিষ্টি ও কোমল পানীয়ের মতো বেশি চিনিযুক্ত খাদ্য বারবার গ্রহণ করলে ডেন্টাল ক্যাভিটি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ডেন্টাল ক্যাভিটি পরবর্তীতে টুথ অ্যাবসেসে পরিণত হতে পারে।

যারা ঝুঁকির মধ্যে আছে

লিঙ্গঃ  পুরুষ ও নারী উভয়ের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার গড়পড়তা সম্ভাবনা থাকে।

জাতিঃ হিস্প্যানিকদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার সম্ভাবনা ১ গুণ কম। শ্বেতাঙ্গ ও কৃষ্ণাঙ্গদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার গড়পড়তা সম্ভাবনা থাকে। অন্যান্য জাতির মানুষের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার সম্ভাবনা ২ গুণ কম। 

সাধারণ জিজ্ঞাসা

উত্তরঃ দাঁতের অতিরিক্ত সংবেদনশীলতা কমানোর জন্য বিশেষ ধরনের টুথ পেষ্ট রয়েছে। স্ট্রনটিয়াম ক্লোরাইড (strontium chloride) অথবা পটাশিয়াম নাইট্রেটযুক্ত এই পেস্ট ব্যবহারের মাধ্যমে কার্যকরভাবে দাঁতের অতিরিক্ত সংবেদনশীলতা কমানো সম্ভব। পেস্টটি কয়েক সপ্তাহ ব্যবহার করার পরই দাঁতের সংবেদনশীলতা কমে যাওয়ার অনুভূতি হয়।

কমলালেবু, আঙুর, লেবু, চা ও সোডার মতো বেশি মাত্রায় অ্যাসিডযুক্ত খাবার গ্রহণ করলে দাঁতের সংবেদনশীলতা বৃদ্ধি যায়। এই ধরনের খাদ্যগুলি দাঁতের অতিরিক্ত সংবেদনশীলতা কমানোর জন্য ব্যবহৃত টুথ পেস্টের ক্রিয়াশীলতাও কমিয়ে দেয়। যদি এ ধরনের পেস্ট ব্যবহার ও দাঁত মাজার পরও দাঁতের সংবেদনশীলতা না কমে, তাহলে এ ব্যাপারে ডেনটিস্টের পরামর্শ নিন। ফ্লোরাইডযুক্ত কিছু সামগ্রী ব্যবহার করে দাঁতের সংবেদনশীলতা কমানো যেতে পারে। 

 

উত্তরঃ দাঁতের কিছু কিছু সমস্যার চিকিৎসা নেওয়ার পূর্বে অ্যান্টিবায়োটিক গ্রহণ করা প্রয়োজন, কারণ   চিকিৎসা করার সময় রক্ত প্রবাহে ব্যাকটেরিয়া প্রবেশ করার সম্ভাবনা থাকে। প্রয়োজনে এ ব্যাপারে আপনি ডেনটিস্টের সাথে আলোচনা করে নিতে পারেন।

হেলথ টিপস্‌

নিয়মিত যত্ন নিয়ে দাঁতের অনেক সমস্যা রোধ করা  যায়। নিয়মিত দাঁত ব্রাশ, ফ্লসিং ও ডেন্টাল চেকআপের মাধ্যমে দাঁতের ক্ষয় ও ডেন্টাল অ্যাবসেস হওয়ার সম্ভাবনা কমানো সম্ভব। যদি আপনি বারবার ডেন্টাল অ্যাবসেসে আক্রান্ত হয়ে থাকেন, তাহলে অন্তর্নিহিত কোনো সমস্যার জন্য তা হচ্ছে কীনা, সে ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়ার জন্য চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন। এছাড়া নিম্নলিখিত বিষয়গুলি  অনুসরণ  করতে পারেন-

  • প্রতি বেলা খাদ্য গ্রহণের পর ও রাতে শোবার পূর্বে দাঁত ব্রাশ করুন।
  • যদি প্রাথমিক পর্যায়ে শণাক্ত করে দাঁতের ক্ষয়ের চিকিৎসা করা হয়, তাহলে দাঁতে সৃষ্ট গহ্বর থেকে অ্যাবসেস হওয়া রোধ করা যায়।
  • তামাক (চর্বণীয় ও ধূমপান) পরিহার করলেও টুথ অ্যাবসেস হওয়ার ঝুঁকি হ্রাস পায়।

বিশেষজ্ঞ ডাক্তার

প্রফেসর ডা: মোঃ আশরাফ হোসেইন

ডেন্টিস্ট্রি ( Dentistry)

ডাঃ মোহাম্মাদ মিজানুর রহমান

ডেন্টিস্ট্রি ( Dentistry)

প্রফেসর ডাঃ অরুপ রতন চৌধুরী

ডেন্টিস্ট্রি ( Dentistry)

মোঃমিজানুর রহমান

ডেন্টিস্ট্রি ( Dentistry)

প্রফেসর ডা: অরূপ রতন চৌধুরী

ডেন্টিস্ট্রি ( Dentistry)