নিউমোথোরাক্স (Pneumothorax)

শেয়ার করুন

বর্ণনা

নিউমোথোর‌াক্স বলতে চুপসে যাওয়া ফুসফুসকে বোঝায়। ফুসফুস ও চেস্ট ওয়ালের (chest wall) মধ্যবর্তী স্থানে বায়ু প্রবেশ করলে নিউমোথোর‌াক্স হয়ে থাকে। এই বায়ু ফুসফুসের বাইরে চাপ প্রয়োগ করে ফুসফুসকে চুপসে দেয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এর ফলে ফুসফুসের একটি অংশ চুপসে থাকে।

বুকে আঘাত লাগা, ফুসফুসে অস্ত্রোপচার বা ফুসফুসের কোনো রোগের কারণে নিউমোথোর‌াক্স হতে পারে। তবে কিছু ক্ষেত্রে কোনো নির্দিষ্ট কারণ ছাড়াও রোগটি হয়ে থাকে। সাধারণত এর লক্ষণ স্বরূপ হঠাৎ বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট  দেখা দেয়।

নিউমোথোর‌াক্স ছোট হলে এবং জটিল রূপ ধারণ না করে তাহলে তা এমনিতেই সেরে যায়। যদি এটি বড় আকার ধারণ করে, তাহলে চিকিৎসকেরা সাধারণত পাঁজরের ভিতর দিয়ে নমনীয় টিউব বা সূচ প্রবেশ করিয়ে অতিরিক্ত বাতাস বের করে থাকেন।

কারণ

সাধারণত নিম্নলিখিত কারণে নিউমোথোর‌াক্স হয়ে থাকে-

  • বুকে আঘাত লাগা: বুকে ভোতা বা তীক্ষ্ণ যে কোনো আঘাতের কারণে ফুসফুস অকেজো হয়ে যেতে পারে। শারীরিক আক্রমণ বা সড়ক দুর্ঘটনার কারণে নিউমোথোর‌াক্স হতে পারে। এছাড়া বুকে সূচ ঢোকানো প্রয়োজন এমন অপারেশন করার সময় দুর্ঘটনাবশত নিউমোথোর‌াক্স হতে পারে।
  • ফুসফুসের রোগ: ফুসফুসের টিস্যু ক্ষতিগ্রস্তে হলে অকেজো হয়ে যায়। ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ (chronic obstructive pulmonary disease), সিসটিক ফাইব্রোসিস (cystic fibrosis) ও নিউমোনিয়ার মতো রোগের কারণে ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।
  • বাতাসপূর্ণ ফোস্কা ফেটে যাওয়া: ফুসফুসের উপরে ছোট ছোট বাতাস পূর্ণ ফোস্কা (ব্লেব) হতে পারে। অনেক সময় এগুলি ফেটে যাওয়ার কারণে ফুসফুস থেকে বাতাস বেরিয়ে ফুসফুসের চারপাশের স্থানে চলে আসতে পারে।
  • কৃত্রিম নিঃশ্বাস: নিঃশ্বাস নেওয়ার জন্য যেসব ব্যক্তির কৃত্রিম ব্যবস্থার উপর নির্ভর করতে হয়, তাদের গুরুতর এক ধরনের নিউমোথোর‌াক্স হতে পারে। কৃত্রিম নিঃশ্বাসের জন্য ব্যবহৃত ভেনটিলেটরের কারণে বুকের ভিতর বাতাসের চাপের ভারসাম্যহীনতা সৃষ্টি হতে পারে। এর ফলে ফুসফুস সম্পূর্ণরূপে অকেজো হয়ে পড়তে পারে এবং হৃৎপিণ্ড অতিরিক্ত চাপের কারণে সঠিকভাবে কাজ করা বন্ধ করে দিতে পারে।

লক্ষণ

এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে চিকিৎসকেরা নিম্নলিখিত লক্ষণগুলি চিহ্নিত করে থাকেন:

ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়

নিম্নলিখিত বিষয়গুলি রোগটির ঝুঁকি বৃদ্ধি করে-

  • লিঙ্গ: মহিলাদের তুলনায় পুরুষদের এই রোগ হওয়ার ঝুঁকি বেশি।
  • ধূমপান: ধূমপান কতোদিন ধরে করা হচ্ছে এবং কী পরিমাণে করা হচ্ছে তার উপর এই রোগটি হওয়ার ঝুঁকি নির্ভরশীল [এমফাইসিমা (emphysema) ছাড়াও]।
  • বয়স: সাধারণত ২০-৪০ বছর বয়সের ব্যক্তিদের ফুসফুসের বাতাসপূর্ণ ফোস্কা ফেটে যাওয়ার কারণে সৃষ্ট নিউমোথোর‌াক্স বেশি হয়ে থাকে। এক বয়সের কোনো ব্যক্তির উচ্চতা যদি খুব বেশি এবং ওজন যদি স্বাভাবিকের তুলন কম হয়, তাহলে তার এই রোগ হওয়ার সম্ভাবনা আরও বৃদ্ধি পায়।
  • জেনেটিক্স: কিছু পরিবারে কয়েক ধরনের নিউমোথোর‌াক্স বেশি হতে দেখা যায়।
  • পূর্বে নিউমোথোর‌াক্স হওয়া: কোনো ব্যক্তির একবার নিউমোথোর‌াক্স হলে ১-২ বছরের মধ্যে তার আবারও এতে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

যারা ঝুঁকির মধ্যে আছে

লিঙ্গঃ নারীদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার সম্ভাবনা ১ গুণ কম। পুরুষদের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার গড়পরতা সম্ভাবনা থাকে।

জাতিঃ কৃষ্ণাঙ্গ ও হিসপ্যানিকদের মানুষের মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার সম্ভাবনা ১ গুণ কম। শ্বেতাঙ্গ ও অন্যান্য জাতির মধ্যে এই রোগ নির্ণয় হওয়ার গড়পড়তা সম্ভাবনা থাকে। 

সাধারণ জিজ্ঞাসা

উত্তরঃ নিউমোথোর‌্যাক্স দুই ধরনের। যথাক্রমে-

১. প্রাইমারি নিউমোথোর‌াক্স (বুকে আঘাত লাগা বা ফুসফুসের কোনো রোগের কারণে সৃষ্ট)

২. সেকেন্ডারি নিউমোথোর‌াক্স (শরীরের কোনো অভ্যন্তরীণ সমস্যার কারণে সৃষ্ট) 

উত্তরঃ যে সব শিশুর রেসপিরেটরি ডিসট্রেস সিনড্রমের (respiratory distress syndrome) মতো ফুসফুসের রোগ রয়েছে।

  • যে সব শিশুর শ্বাসপ্রশ্বাসের জন্য কৃত্রিম ভেন্টিলেটরের প্রয়োজন হয়।
  • অপরিণত শিশু, যাদের ফুসফুসের টিস্যু বেশি দুর্বল।
  • যে সব শিশুর মিকোনিয়াম অ্যাসপিরেশন রয়েছে (কারণ এটি ফুসফুসের বাতাস চলাচলের পথকে আটকে দিয়ে ফুসফুসের কিছু অংশকে অকেজো করে দেয়)।

হেলথ টিপস্‌

এই রোগের প্রতিরোধ ব্যবস্থা এর কারণের উপর নির্ভরশীল। যদি আপনি ধূমপায়ী হয়ে থাকেন, তাহলে ধূমপান ত্যাগ করার চেষ্টা করুন। এ ব্যাপারে প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শও নিতে পারেন।

মটর চালিত যানবাহনে চলার সময় সিটবেল্ট ব্যবহার করতে হবে যাতে কোনো দুর্ঘটনা হলে বুকে আঘাত না লাগে।

 

বিশেষজ্ঞ ডাক্তার

প্রফেসর ডা: খান আবুল কালাম আজাদ

ইন্টারনাল মেডিসিন ( Internal Medicine)

ডা: মো: শাকুর খান

পালমোনোলজি ( ফুসফুস) ( Pulmonology)

প্রফেসর ডা: মো: আজিজুল কাহ্হার

ইন্টারনাল মেডিসিন ( Internal Medicine)

ডা: মো: রফিকুল আলম

পালমোনোলজি ( ফুসফুস) ( Pulmonology)

প্রফেসর ডা:এম.এ. আজহার

ইন্টারনাল মেডিসিন ( Internal Medicine)