ইডিওপ্যাথিক অ্যাবসেন্স অফ মেন্সট্রুয়েশন (Idiopathic absence of menstruation)

শেয়ার করুন

বর্ণনা

মাসিক না হওয়া”– কে চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় বলা হয় অ্যামেনোরিয়া। সাধারণত বয়ঃসন্ধিকালের আগেগর্ভাবস্থায় এবং মেনোপজের পরে মহিলাদের মাসিক হয় না। এই সময় ব্যতীত অন্য কোন সময় মহিলাদের মাসিক না হওয়া ভাল লক্ষণ নয়। এরকম হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিৎ।

সাধারণত মাসিক না হওয়া দুই ধরণের। আগে মাসিক হত কি না তার উপর ভিত্তি করে একে দুই ভাগে ভাগ করা হয়।

 

প্রাইমারি অ্যামেনোরিয়া (Primary amenorrhea)

বয়স ১৬ হয়ে গেছে অথচ এখনো মাসিক হয়নি, এরকম মেয়েদের প্রাইমারি অ্যামেনোরিয়া রয়েছে-১৮ বছরের মধ্যে মাসিক শুরু হয়, তবে মেয়েদের মাসিক শুরু হওয়ার গড় বয়স ধরা হয় ১২ ন্যাশনাল ইনিস্টিটিউট অফ হেলথ-এর মতে ১ শতাংশেরও কম মেয়েরা এই সমস্যায় ভোগে।

 

সেকেন্ডারি অ্যামেনোরিয়া (Secondary amenorrhea)

যে সকল মহিলাদের অতীতে মাসিক হয়েছে কিন্তু বর্তমানে অন্তত ৩ চক্র বা ৬ মাস ধরে মাসিক হচ্ছে না তাদেরকে সেকেন্ডারি অ্যামেনোরিয়ার আওতায় ধরা হয়। গর্ভবতী মহিলা ব্যতীত প্রায় ৪ শতাংশ মহিলারা এ সমস্যায় ভুগে থাকেন।

কারণ

মাসিকে সাহায্য করে এমন কোন অঙ্গ, গ্রন্থি এবং হরমোনের যে কোনো ধরণের পরিবর্তনের কারণে অ্যামেনোরিয়া দেখা দিতে পারে।

প্রাইমারি অ্যামেনোরিয়া কারণগুলো হলো-

  •  ওভারিতে সমস্যা
  • প্রধান স্নায়ুতন্ত্র ব্যবস্থায় (central nervous system) অথবা পিটুইটারি গ্রন্থিতে সমস্যা
  • দুর্বলভাবে গঠিত হওয়া জননাঙ্গ

বেশির ভাগ ক্ষেত্রে প্রাইমারি অ্যামেনোরিয়ার সঠিক কারণ জানা সম্ভব হয় না।

 

সেকেন্ডারি অ্যামেনোরিয়া হওয়ার স্বাভাবিক কারণগুলো হলো-

 

  • গর্ভাবস্থা
  • বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানোর সময়
  • জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি ব্যবহার করা বন্ধ করা
  • মেনোপজ
  • কিছু ধরণের জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি (যেমন- ডেপো প্রোভেরা) ব্যবহারের করলে

অন্য আরও যে সব কারণে সেকেন্ডারি অ্যামিনোরিয়া হতে পারে-

  • দুশ্চিন্তা
  • পুষ্টির অভাব
  • হতাশা
  • নির্দিষ্ট কিছু ঔষধের ব্যবহার
  • অত্যাধিক ওজন হ্রাস
  • অতিরিক্ত ব্যায়াম করা
  • অনেক দিন ধরে অসুস্থ থাকা
  • হটাৎ করে ওজন বৃদ্ধি পাওয়া
  • পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোমের কারণে হরমোনের অসামঞ্জস্যতা
  • থায়রয়েড গ্ল্যান্ড ডিজঅর্ডার
  • ওভারি অথবা মস্তিষ্কে টিউমার

যে সকল মহিলাদের ওভারি এবং জরায়ু অপারেশন করে কেটে ফেলা হয়েছে তাদেরও মাসিক হয় না।

 

লক্ষণ

এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে চিকিৎসকেরা নিম্নলিখিত লক্ষণগুলি চিহ্নিত করে থাকেন:

ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়

যে সকল ব্যাপার মাসিক না হওয়ার ঝুঁকি বৃদ্ধি করে তা হলো-

  • পরিবারের অন্য কোন সদস্যের যদি আগে এরকম সমস্যা হয়ে থাকে তাহলে আপনার হতে পারে।
  • ইটিং ডিজঅর্ডার বা খাদ্য গ্রহণের সমস্যা (যেমন- অ্যানোরেক্সিয়া বা বুলিমিয়া) থাকলে আপনার মাসিক না হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি।
  • অতিরিক্ত পরিমাণে শরীরচর্চা করা।

যারা ঝুঁকির মধ্যে আছে

লিঙ্গঃ শুধুমাত্র মহিলাদের হয়ে থাকে।

জাতিঃ সাধারণত হিস্প্যানিক এবং কৃষ্ণাঙ্গ গোত্রীয় মহিলাদের অ্যামেনোরিয়া হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। অপর দিকে শ্বেতাঙ্গদের অ্যামেনোরিয়া হওয়ার সম্ভাবনা হিস্প্যানিক এবং কৃষ্ণাঙ্গ গোত্রীয় মহিলাদের তুলনায় ১ গুণ কম।

সাধারণ জিজ্ঞাসা

উত্তরঃ নিয়মিত মাসিক হতে হতে কয়েক মাস মাসিক হওয়া বন্ধ থাকলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন। ২১ দিনের আগে বা ৪৫ দিনের পরে মাসিক হতে থাকলেও ডাক্তার দেখান।

হেলথ টিপস্‌

মহিলারা প্রতিদিনের জীবনযাত্রায় আমরা এমন কিছু করে থাকেন যার কারণে মাসিক না হওয়া বা অ্যমেনোরিয়া দেখা দিতে পারে। যেমন- অতিরিক্ত শরীরচর্চা, খুবই অল্প পরিমাণ খাওয়া ইত্যাদি। তাই কাজ, আমোদ-প্রমোদ এবং বিশ্রামের মধ্যে সামঞ্জস্য রেখে জীবন যাপন করতে হবে

যে সকল ব্যাপার আপনার জীবনে দুশ্চিন্তা এবং দ্বন্দ্ব সৃষ্টি করছে সেগুলো নির্ধারণ করার চেষ্টা করুন। দুশ্চিন্তা কমিয়ে ফেলুন। নিজে না পারলে পরিবার, বন্ধু অথবা আপনার চিকিৎসকের সাহায্য নিন।

মাসিক চক্র সম্বন্ধে ধারণা রাখুন। কোন চিন্তার বিষয় দেখা দিলে ডাক্তার দেখান। কোন দিন মাসিক হলো তা লিখে রাখুন। কোন দিন শুরু হলো, কত দিন থাকল এবং কোনো সমস্যা দেখা দিল কিনা সব লিখে রাখুন।

বিশেষজ্ঞ ডাক্তার

প্রফেসর ডাঃ সায়েবা আক্তার

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

প্রফেসর ডাঃ কোহিনুর বেগম

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

প্রফেসর ডা: জেসমিন আরা বেগম

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

অধ্যাপক ডাঃ সারিয়া তাসনীম

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

এমবিবিএস, এফসিপিএস(গাইনী এন্ড অব্‌স), এমএসএমএড(ইংল্যান্ড), ডিআইপি সিইপিআইডি(লন্ডন)

প্রফেসর ডা: মালিহা রশিদ

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

প্রফেসর ডাঃ সামিনা চৌধুরী

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

প্রফেসর ডাঃ এস.এফ. নার্গিস

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)

ডাঃ শারমীনা সীদ্দিক

গাইনি ও অবসটেট্রিক্স ( Obstetrics & Gynaecology)